সাধারণ নিয়ম হলো , প্রত্যেক বিষয় যার উপর ভিত্তি করে মামলার কোন পক্ষ কোন কিছু দাবি করে, সেই সকল বিষয় প্রমাণ করতে হবে । কিন্তু এই সাধারণ নিয়মের তিনটি ব্যতিক্রম আছে –

 

১.বিচারিকভাবে দৃষ্টিগোচর বিষয়সমূহ (ধারা-৫৬)

২.স্বীকৃত বিষয়সমূহ ( ধারা-৫৮)

৩.আইনের মাধ্যমে অনুমানযোগ্য বিষয়সমূহ  (ধারা ৮৬-৮৮)

 

এই তিনটি বিষয় প্রমাণ না করলেও তা প্রমানিত বলে গণ্য হবে ।

 

####যে সকল বিষয়সমূহ আদালতকে বিচারিক দৃষ্টিগোচর নিতে হয় তা ৫৭ ধারায় বলা হয়েছে

১.বাংলাদেশের আইনসমূহ

২.সশস্ত্র বাহিনীর জন্য প্রণীত যুদ্ধবিধি সমূহ

৩.আইন সভার কার্যসমূহ

৪.আদালত সমূহের সীল মোহর

৫.এডমিরালটি ও সামুদ্রিক এখতিয়ারসম্পন্ন আদালতসমূহের সীল মোহর ,নোটারী পাবলিকের সীল মোহর

৬.বাংলাদেশে কোন সরকারি পদে কারো যোগদানের বিষয়ে সরকারি গেজেট

৭.সরকার কর্তৃক কোন রাষ্ট্র অথবা রাজা বা রাণীর অস্তিত্ব ,উপাধি ও জাতীয় পতাকা

৮.সময়ের বিভাগসমূহ, পৃথিবীর ভৌগলিক বিভাগসমূহ এবং সরকারি গেজেটে বিগ্ঞপ্তি,যেমন-সরকারি ছুটি সমূহ ।

৯.বাংলাদেশের ভূখন্ডসমূহ বাংলাদেশের সাথে অপর রাষ্ট্র বা সংগঠনের বিরোধ আরম্ভ হওয়া, চলতে থাকা ও অবসান হওয়া

১০.আদালতের সদস্রবৃন্দের

১১.তালিকা স্থল বা সমুদ্র পথের নিয়মাবলী

 

‘৫৮’ ধারা অনুসারে স্বীকৃত বিষয়সমূহ হলো – যদি মোকদ্দমার পক্ষগণ অথবা তাদের প্রতিনিধিগণ কোন বিষয়ে মোকাদ্দমার শুনানীর সময় স্বীকার করে ,তাহলে তা প্রমাণের প্রয়োজন নেই ।

 

m.a.showdagor