টাকার বিনিময়ে ভুয়া পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট তৈরি করা জালিয়াতি চক্রের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের একটি দল।

 বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা শুধু ভুয়া পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটই তৈরি করতেন না তারা একই সঙ্গে দেশের বিভিন্ন জেলার পুলিশ সুপার, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ (ওসি) বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের নকল সিল ব্যবহার ও জালিয়াতি করে আসছিলেন।

 রোববার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই সব তথ্য জানান যুগ্ম কমিশনার (ডিবি) আবদুল বাতেন।

 গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন মোসলেম মিয়া, শাহ আলম কবির, আশিকুর রহমান ও মো. আবদুর রহিম।

 তাদের কাছ থেকে ১ হাজার ৬১২টি জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভিন্ন সংস্থা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নকল সিল (ব্যবহৃত) ৬৯টি, নোটারি পাবলিকের অ্যাম্বুস সিল তিনটি, বিভিন্ন জেলার পুলিশ সুপার ও ওসিদের সিলসহ মোট ৬১৭টি, পাঞ্চ মেশিন তিনটি, কম্পিউটার দুটি ও একটি প্রিন্টার উদ্ধার করা হয়।

 আবদুল বাতেন জানান, বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে দেশের প্রতিটি জেলা, থানা ও ডিএমপির ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। যে চক্রটিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তারা টাকার বিনিময়ে জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট তৈরি করে দেয়। এ ছাড়াও তারা বিভিন্ন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও ট্রাভেল এজেন্সির চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এবং অর্থের বিনিময়ে এ ধরনের কর্মকাণ্ড করে থাকে।

 প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে মানবপাচারকারী বা দালাল চক্রের সদস্যরা প্যাকেজ আকারে স্বল্প ও অশিক্ষিত মানুষের কাছ থেকে প্রতিটি পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের জন্য ১০ হাজার টাকা করে নিতেন এবং এ চক্র তাদের চাহিদা অনুযায়ী জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স বানিয়ে দিত।

 

m.ahmad