বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ একটি আদর্শিক, গণতান্ত্রিক, রাজনৈতিক দল। নির্বাচন এলে সব রাজনৈতিক দলই কৌশল অবলম্বন করে। সে লক্ষ্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করছেন।

আজ শুক্রবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির প্রয়াত সদস্যদের সন্তানদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। ডিআরইউ এবার বৃত্তি প্রদান করেছে ১৭ প্রয়াত সদস্যের সন্তানকে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘নির্বাচন এ সরকারের আমলেই হবে। এ সরকার অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের ভূমিকা পালন করবে। বর্তমান নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। গত নির্বাচনে না এসে বিএনপি ভুল করেছে। এবার সে ভুল তারা করবে না।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘সাংবাদিকদের সঙ্গে আমার সম্পর্ক পুরোনো। তাঁরা অনেক ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেন। এ জন্য তাঁদের অভিনন্দন জানাই। ডিআরইউ যে সক্ষমতার চেয়েও বড় উদ্যোগ নিয়েছে, এ জন্য অভিনন্দন জানাই।’ এ সময় তিনি ডিআরইউর বৃত্তি ফান্ডে আর্থিক অনুদানের আশ্বাস দেন।

সাংবাদিকদের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সম্পর্কের বিষয়ে তোফায়েল আহমেদ বলেন, সাংবাদিক ফয়েজ আহমেদ, আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী, এনায়েত উল্লাহ খান প্রমুখের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক মতবিরোধ ছিল; কিন্তু সম্পর্কের ঘাটতি ছিল না। আজকাল সে পরিবেশটা ক্রমশ হ্রাস পাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিলবোর্ড অ্যাডভার্টাইজিং ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুরসালীন নোমানী। বক্তব্য দেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, অর্থ সম্পাদক মানিক মুনতাসীর। অনুভূতি প্রকাশ করেন ডিআরইউর প্রয়াত সদস্য আরিফ রহমানের স্ত্রী অহনা আক্তার ও ওবায়দুল গণি চন্দনের স্ত্রী রুবিনা মোস্তফা।