দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র বিএনপি নেতা সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তাঁকে মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনে বাধা না দিতেও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

 আজ সোমবার বিচারপতি এস এম এমদাদুল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

 আদালতে মেয়রের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট নুসরাত ইয়াসমিন সুমাইয়া, মো. মোসাদ্দেক বিল্লাহ ও মো. রেজাউল করিম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল খুরশিদুল আলম।

 মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, গত ১৪ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মো. মাহমুদুল আলমের সই করা এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমকে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এই বরখাস্তের আদেশ চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম। রিটের শুনানি নিয়ে আদালত বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করেন।

 এর আগেও ২০১৫ সালের ৩ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার বিভাগ দুর্নীতির অভিযোগে জাহাঙ্গীর আলমকে বরখাস্ত করেছিল। পরে একই বছরের ৯ ডিসেম্বর উচ্চ আদালতে রিট করে মেয়র পদে পুনর্বহাল হন তিনি। সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম বিএনপির রংপুর বিভাগীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক।